সাপ্লিমেন্ট


  • আপনার আজকের দিন কেমন কাটবে ? জানুন আজকের রাশিফল(শুক্রবার ৭ জুন ২০১৯)

    newsbazar24:  মেষ: কাজের ব্যাপারে ক্ষোভ বাড়তে পারে। সংসারের জন্য শান্তির কামনা। পাওনা আদায় নিয়ে বিবাদ হতে পারে। শত্রু থেকে মুক্তি লাভ। ধর্ম সংক্রান্ত ব্যাপারে দান। আজ পারিবারিক বিরোধ অনেক দূর পর্যন্ত যাবে। আজ সকালের দিকে আপনার কোনও ক্ষতি হতে পারে। ব্যবসার ব্যাপারে চিন্তা বৃদ্ধি। শরীরে কোনও কষ্ট বাড়তে পারে। আজ বন্ধুর থেকে সাহায্য পেতে পারেন। পেটের কোনও কষ্ট বৃদ্ধি। বৃষ: কীটপতঙ্গ থেকে একটু সাবধান থাকুন। সংসারে ব্যয় সঙ্কোচন করার আলোচনা। শত্রুর জন্য ভয় বাড়তে পারে। ব্যবসায় বুদ্ধির পরিচয় দিতে হবে। কোনও নামী স্থানে কাজের যোগাযোগ হতে পারে। আজ রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। সম্পত্তির ব্যাপারে মা-বাবার সঙ্গে আলোচনা। বন্ধুদের সঙ্গে বিরোধ হতে পারে। আইনি কোনও কাজের জন্য খরচ বাড়বে। আর্থিক চাপ থাকতে পারে। বাড়ির বাইরে বিবাদ বাড়তে পারে। মিথুন: প্রেমে বিরহ যন্ত্রণা বাড়তে পারে। সকালের দিকে কোনও আঘাত লাগতে পারে। প্রেমের ব্যাপারে শান্তি আসতে পারে। চিকিৎসার জন্য খরচ বৃদ্ধি। সন্তানের লেখাপড়ার জন্য চিন্তা বৃদ্ধি। পেটের কোনও সমস্যা বাড়বে। বন্ধুর থেকে ভালবাসা বাড়তে পারে। ব্যবসায় ক্ষতি হতে পারে। বাড়তি কোনও খরচের জন্য স্ত্রীর সঙ্গে বিবাদ। বুদ্ধির ভুলে ক্ষতি হতে পারে। বাবার শরীর নিয়ে চিন্তা ও কষ্ট বাড়বে। পড়াশোনার জন্য কোনও চিন্তা বৃদ্ধি। কর্কট: আর্থিক ব্যাপারে কোনও চাপ আসতে পারে। আজ কোনও আশা ভঙ্গ হতে পারে । দূরে কোথাও বেড়াতে যাওয়া নিয়ে আলোচনা। সামাজিক কোনও কাজের জন্য নাম, যশ বাড়তে পারে। বিদেশে উচ্চশিক্ষার জন্য গবেষণা। কোনও আত্মীয়ের খারাপ খবর আসতে পারে। কর্মস্থানে অশান্তি বাড়বে। আজ একটু একা থাকতে ভাল লাগবে। জমি বাড়ি কেনার প্রস্তাব আসতে পারে। কর্মস্থানে কোনও বিবাদ আনেক দূর যাবে, একটু সাবধান থাকুন। সিংহ: অতিরিক্ত কথা বলবার জন্য বাড়িতে বিবাদ হতে পারে। ব্যবসায় কোনও শুভ পরিবর্তন আসতে পারে। কোনও আত্মীয়ের বাড়িতে ভ্রমণ হতে পারে। প্রেমের জন্য আঘাত আসতে পারে। খেলাধূলায় সাফল্য আসতে পারে। বিবাহের ব্যাপারে আনন্দ। ব্যবসায় আয়ের পরিমাণ বৃদ্ধি। বাড়তি কোনও খরচের জন্য চিন্তা বাড়তে পারে। শেয়ারে অর্থ ব্যয় থেকে সাবধান থাকুন। কন্যা: আজ ভাগ্য উন্নতির কোনও সুযোগ পেতে পারেন। শরীরে কোনও রোগের কারণে যন্ত্রণা বৃদ্ধি। প্রেমের জন্য বিরহ আসতে পারে। আজ বন্ধুর থেকে ভাল সাহায্য পাবেন। ব্যবসায় কেউ খারাপ ব্যবহার করতে পারে। সম্পত্তির ব্যাপারে অশান্তি আসতে পারে। সন্তানকে নিয়ে অশান্তি আসতে পারে। বাড়িতে অশান্তির জন্য আজ মন ভাল থাকবে না। রক্তচাপ বাড়তে পারে। পূজাপাঠের জন্য খরচ হতে পারে। তুলা: বাড়িতে আজ অনেক অতিথি আসতে পারে। আজ সকালের দিকে আপনার মনের মতো পরিবেশ পেতে পারেন। বিবাহিত জীবন খুব ভাল কাটতে পারে। কর্মস্থানের পরিবর্তন। বাড়তি খরচের যোগ রয়েছে। ডাক্তারের জন্য চিন্তা বৃদ্ধি। নীতির দিকে দিয়ে কোনও কাজ নিয়ে বিবাদ। বন্ধুকে নিয়ে বাড়িতে অশান্তি হতে পারে। ভাল কাজে খরচ বাড়তে পারে। বাড়িতে বাজে খবর আসার আশঙ্কা। মাথার যন্ত্রণা বাড়বে। দুপুরের পরে আপনার ব্যবহার খারাপ হতে পারে। বৃশ্চিক: সময়ের সঙ্গে একটু তাল মিলিয়ে চলুন। রহস্যজনক কিছু আবিষ্কার করতে পারেন আজ। ব্যবসায় ভাল লাভের সময়। বন্ধুর ব্যাপারে খারাপ কিছু ঘটতে পারে। স্ত্রীর সঙ্গে তর্কে আজ কোনও কিছু ক্ষতি হতে পারে। বাড়িতে বাড়তি খরচের জন্য গুরু জনের সঙ্গে  অশান্তি। কোনও গোপন রোগ বাড়তে পারে। ব্যবসায় চাপ বৃদ্ধি। প্রেমে আঘাত আসবে। সন্তানের জন্য চিন্তা ও খরচ বাড়তে পারে। ধনু: অজথা অপমানিত হতে পারেন। তবে ভ্রুমণের ভাল যোগ আছে। নিজের জেদের জন্য আজ কোনও ক্ষতি হতে পারে। সম্পত্তির ব্যাপারে আত্মীয়ের সঙ্গে বিবাদ হতে পারে। পশুপাখি নিয়ে আনন্দ পেতে পারেন। সংসারের জন্য অর্থ ব্যয় হতে পারে। ব্যবসার দিকে ভাল সুযোগ কাজে লাগান। চিকিৎসার জন্য খরচ ও চিন্তা বৃদ্ধি। মকর: গান বাজনার প্রতি অনুরাগ বাড়তে পারে। আজ আয়ের দিক দিয়ে দিনটি ভাল। বন্ধুর জন্য কোনও শুভ কাজ করতে পারেন। ব্যবসায় কোনও নতুন ব্যবস্থা। কারও জন্য চিকিৎসা খরচ বৃদ্ধি। চাকরির জায়গায় তর্ক। শরীরে কোনও যন্ত্রণা বাড়তে পারে। ব্যবসার ব্যপারে চিন্তা বৃদ্ধি। মানসিক দিক দিয়ে কষ্ট। প্রেমের জন্য বাড়িতে বিবাদ। আর্থিক চাপ বাড়তে পারে। অর্থের ব্যাপারে একটু চাপ বাড়তে পারে। কুম্ভ: কোনও ভাল কাজ না হওয়ার জন্য মানসিক কষ্ট। কাজের জন্য নতুন কিছু চেষ্টা করতে পারেন। আজ আপনার হাতে কোনও জিনিসের ক্ষতি হতে পারে। সন্তানের ব্যাপারে চাপ বাড়তে পারে। পেটেরয সমস্যা হতে পারে। আজ কোনও কাজের সুফল পেতে পারেন। বাড়িতে কোনও ভুল কাজ করবার জন্য বাবা-মার থেকে ভয়। ধর্মের প্রতি আসক্তি বাড়তে পারে। ব্যবসার দিকে মধ্যম ফল। মীন: রাজনীতির সঙ্গে যুক্তদের জন্য ভাল খবর আসতে পারে। আজ সারাদিন কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকতে হবে। অযথা কোনও অশান্তি হতে পারে। প্রিয় জনের জন্য মানসিক কষ্ট হতে পারে। বাড়তি খরচের ব্যাপারে চিন্তা বাড়তে পারে। অতিরিক্ত কথা বলবার জন্য কর্মস্থানে বিবাদ। ব্যবসায় কারও সঙ্গে তর্ক। সন্তানের জন্য চিন্তা। প্রিয় জনের কোনও ক্ষতি হতে পারে। পেটের সমস্যা বাড়বে। দুপুরের পরে ব্যবসা ভাল যাবে।

  • আপনার আজকের দিন কেমন কাটবে ? জানুন আজকের রাশিফল(বৃহস্পতিবার ৬ জুন ২০১৯)

    newsbazar24:  মেষঃ আজ গুরুদেবের সঙ্গে থাকার জন্য মানসিক শান্তি থাকবে। আজ কর্ম ভালই এগোবে, কিন্তু মনে একটা ব্যাকুলতা কাজ করবে। কারও বিশ্বাস ভঙ্গের অপবাদ আসতে পারে। সাংসারিক জটিলতা কাটতে পারে। না চাইতেই পাওনা আদায় হতে পারে। কোনও কারণে কর্মে অবসাদ আসতে পারে, কাটিয়ে না উঠলে সমস্যা। আপনার উচ্চ মানসিকতা আপনাকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। মন স্থির রেখে পারিবারিক দায়িত্ব পালন করুন। চলাফেরায় বাড়তি সতর্কতা প্রয়োজন। বৃষঃ পূজাপাঠের জন্য ভক্তি বাড়তে পারে। আপনার কুচিন্তা আপনার কাজে বাধার সৃষ্টি করবে। নতুন গৃহ নির্মাণের পরিকল্পনা করার ভাল সময়। আপনি কোনও ভাল কারণে পুরস্কার পেতে পারেন। শেয়ার বা ফাটকায় প্রাপ্তি যোগ। আজ কোনও কারণে বিপদে পড়ে আপনাকে মিথ্যা কথা বলতে হতে পারে। হঠাৎ করে নেওয়া কোনও সিদ্ধান্তে আপনি লাভবান হবেন। কাউকে বিশ্বাস করবেন না। উচ্চ শিক্ষার সুযোগ পাবেন। মিথুনঃ সকালের দিকে চোখের সমস্যা হতে পারে। আজ কোনও বিশেষ কারণে সংসারে অশান্তির জন্য অন্যের বাড়িতে থাকতে হতে পারে। প্রিয় জনের শারীরিক উন্নতির খবর পেতে পারেন। মিষ্টি ব্যবহারে মানুষের মন জয়। ঋণ সংক্রান্ত কাজে সাফল্য। আজ রাস্তায় বাড়তি সতর্কতা প্রয়োজন, বিপদের আশঙ্কা। নতুন কাজের যোগাযোগ বা বাড়তি উপার্জন হওয়ার শুভ সময়। পৈতৃক সম্পত্তি নিয়ে ভাই-বোনদের সঙ্গে অশান্তি। আইনি ব্যাপারে সুব্যবস্থা। কর্কটঃ উচ্চপদস্থ ব্যক্তির কাছে অপমানিত হতে পারেন। কর্মচারীর জন্য ব্যবসায় লাভ হতে পারে। কোথাও ভ্রমণের পক্ষে দিনটি শুভ নয়। মা–বাবার সঙ্গে কোনও কারণে বিরোধ। মাথা ঠান্ডা রাখতে হবে। আজ সকাল বেলাতেই চমকে যাওয়ার মতো খবর পেতে পারেন। আলস্য কাটিয়ে উঠতে পারলে লাভবান হবেন। বয়সে ছোট কারও কাছ থেকে উপকার পাবেন। নিজের সিদ্ধান্তে অটল থাকুন, ক্ষতি হবে না। সিংহঃ বাড়িতে আগুন থেকে সাবধান থাকুন। আজ ব্যবসায় অতিরিক্ত পরিশ্রমেও কোনও লাভ হবে না। আপনার সঙ্গে আলোচনায় মানুষ শান্তি পাবে। খুব ভাল একটা যোগাযোগ আপনার জন্য অপেক্ষা করছে। সন্তানদের সঙ্গে মিশে যেতে হবে। আজ কোনও গুজবে কান দিয়ে মাথা গরম করবেন না। অল্পে সন্তুষ্ট থাকার চেষ্টাই আপনাকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। সংসারে মনোমালিন্য সৃষ্টি হতে পারে। মালিকের সঙ্গে বিবাদের আশঙ্কা। কন্যাঃ রাস্তাঘাটে কোনও বিপদ থেকে সাবধান। আজ আপনি সহজেই শত্রুকে চিনে নিতে পারবেন। আজ সারা দিন অলসতায় কাটবে এবং ব্যবসায় ক্ষতি হবে। বাড়ির পরিবেশ কিছুটা অনুকূল থাকবে। ভাই-বোনদের সঙ্গে ঝগড়া। আজ কোথাও ভ্রমণের জন্য মন খুব ব্যাকুল হবে। কোনও বিষয়ে ধননাশ হতে পারে। সম্পত্তি থেকে বিতারিত হওয়ার যোগ দেখা যাচ্ছে। বাড়তি বিনিয়োগ না করাই ভাল হবে। অতিরিক্ত কথায় অশান্তি। তুলাঃ প্রতিযোগিতায় জয় লাভ। ধর্মের কথা আলোচনায় আজ আপনার সুনাম বাড়বে। মাত্রা ছাড়ানো আবেগ আজ আপনার ক্ষতি ডেকে আনতে পারে। কর্মক্ষেত্রে জটিলতা কাটতে পারে। প্রিয় কোনও বন্ধুর সঙ্গে দেখা হতে পারে। খাদ্যের প্রতি লোভ সামলাতে না পারলে শারীরিক অসুস্থতা। বন্ধুর জন্য কোথাও সম্মানিত হতে পারেন। ব্যবসায় মনোবল থাকলে বাধা কাটবে। কাউকে পরামর্শ না দেওয়াই ভাল। বৃশ্চিকঃ আজ সকালের দিকে শরীরে কষ্ট হতে পারে। পরিশ্রম সত্ত্বেও সংসারে অভাব অনটন থাকবে। যানবাহন চলাচল খুব সাবধানে করতে হবে, বিপদের আশঙ্কা। প্রেমের ক্ষেত্রে দিনটি শুভ। পরিবারের গুরুত্বপূর্ণ সমস্যার সমাধান। আজ দিনটা সব দিক থেকে আপনার অনুকুল থাকবে। সকলের সঙ্গে কথা খুব বুঝে বলবেন। সন্তানদের নিয়ে সংসারে কলহ সৃষ্টি হতে পারে। আইনি কোনও সমস্যায় পড়তে পারেন। ধনুঃ সকাল থেকে ব্যবসার দিকে একটু চাপ থাকবে। নিজের প্রতিভা ফুটিয়ে তোলার আজ বিশেষ দিন। মনে মনে কোনও ভয় আপনার বুদ্ধি নষ্ট করতে পারে। আবেগের বশে কোনও কাজ করলে বিপদ। অমাশয় জাতীয় রোগে কষ্ট পেতে পারেন। ভাল করে না ভেবে উপার্জনের রাস্তায় পা না দেওয়াই ভাল। অতিরিক্ত পরিশ্রমে শারীরিক দুর্বলতা। মাত্রাছাড়া রাগ আপনার ক্ষতি ডেকে আনতে পারে। ঋণ ফেরত পাবেন কিন্তু তার জন্য বেগ পেতে হবে। মকরঃ একাধিক পথে আয় করতে গিয়ে বিপদ হতে পারে। কাজের ব্যাপারে উদ্বেগ আসতে পারে। খেলাধূলার জন্য উপহার পেতে পারেন। অহেতুক রাগ বাড়তে পারে। কুটিল মনোভাবের জন্য অশান্তি বৃদ্ধি। ব্যবসায় ভাল সুযোগ আসতে পারে। আর্থিক ব্যাপারে সাহায্য মেলার সম্ভাবনা। পাওনা আদায়ে দেরি হতে পারে। পেটের সমস্যা থেকে সাবধান। চাকরির জায়গায় উচ্চপদস্থ ব্যক্তির চাপ বৃদ্ধি পাওয়ার জন্য চিন্তা। মানসিক চাঞ্চল্য বাড়তে পারে। কুম্ভঃ আজ দিনটা একটু সমস্যার ভিতর দিয়ে কাটতে পারে। কর্মক্ষেত্রে দায়িত্ব বৃদ্ধির জন্য সংসারে অবহেলা বা অশান্তি। নিম্ন বিদ্যার্থীদের ক্ষেত্রে দিনটি খুব শুভ। আজ বন্ধু বিচ্ছেদ ঘটতে পারে। মা বা বাবার শরীর নিয়ে বিশেষ চিন্তা থাকবে। অর্থ ভাগ্য ভাল হলেও পরিশ্রম থাকবে প্রচুর। প্রেমে প্রচুর সাফল্য থাকবে। কুটির শিল্পের সঙ্গে যুক্তদের উন্নতি। মীনঃ সবার কাছে আজ প্রচুর ভালবাসা পাবেন। আজ আপনার রসিকতা অপরের বিপদ ডেকে আনতে পারে। রাগ বা জেদ বৃদ্ধি পাওয়ার জন্য রক্তচাপ বৃদ্ধি। আজ কর্মক্ষেত্রে আপনি ভাল ফল পাবেন। কোনও নতুন কিছু করার ইচ্ছা মনে কাজ করবে। নিজের সম্পত্তি থেকে কিছু অংশ ছাড়তে হতে পারে। আজ অপরের জন্য কোনও কাজ করে আনন্দ পাবেন।

  • আপনার আজকের দিন কেমন কাটবে ? জানুন আজকের রাশিফল(বুধবার ৫ জুন ২০১৯)

    newsbazar24:  মেষঃ আজ ব্যবসায় কোনও বিষয়ে একটা পরিবর্তন লক্ষ্য করতে পারেন। নিজের কথাবার্তা সংযত করে সংসারে চলবেন। সঠিক কোনও বিচার আপনাকে অনেক দূর নিয়ে যাবে। শরীর ভাল থাকবে।কর্মক্ষেত্রে আপনি নিজেকে একটু গুটিয়ে রাখার চেষ্টা করুন। সন্তানদের কথায় গুরুত্ব দেওয়ার চেষ্টা করুন। সদুপায়ে আয় বৃদ্ধির চিন্তা ভাবনা করতে পারেন। সামাজিক দায়িত্ব আসতে পারে। বৃষঃ সকালের দিকে মায়ের শরীরের জন্য চিকিৎসার খরচ বাড়তে পারে। আজ সমাজসেবায় কিছু কাজ করতে ইচ্ছে করবে। সহকর্মী আপনাকে বিপদে ফেলার চেষ্টা করবে। উচ্চাকাঙ্খা আজ বাড়তে দেবেন না। তৃতীয় কারও জন্য সংসারে অশান্তি।  অনেকদিনের পুরনো কোনও রোগের হাত থেকে মুক্তি পেতে পারেন। বেশি তর্কবিতর্ক আজ বিপদে ফেলতে পারে। প্রতিবেশীদের কাছ থেকে সাহায্য পাবার জন্য আনন্দ। মিথুনঃ অর্থ উপার্জনের জন্য দিনটা ভাল।আর্থিক উন্নতি হবে।সারা দিন সাংসারিক শান্তি বজায় থাকলেও রাতের দিকে অশুভ। অযথা কোনও ঝামেলায় জড়িয়ে পড়তে পারেন। সন্তানদের নিয়ে চিন্তা। আজ কর্মে অলসতা থাকায় কর্মস্থানে অশান্তি হতে পারে।সন্তানকে সাহায্য করতে পেরে মনে আনন্দ। সাধু সেবায় নিজেকে বিলিয়ে দেওয়ার ইচ্ছা থাকবে। আশপাশের পরিবেশ অনুকুল। কর্কটঃ কর্মস্থানে আপনি সহকর্মীর হিংসার জন্য বিপদে পরতে পারেন। বিদ্যার্থীদের জন্য সময়টা খুব একটা ভাল নয়। চিকিৎসার জন্য অর্থ খরচ হতে পারে। ভাল কাজ করে মনে উৎফুল্লতা। আজ মায়ের কাছ থেকে বিশেষ কোনও সাহায্য পেতে পারেন । ঘরে বাইরে দায়িত্বের চাপে মানসিক ক্লেশ । কোনও দিক থেকে শুভ যোগাযোগ আসতে পারে। গুরুসেবা করুন ভাল ফল পাবেন।পায়ের যন্ত্রণা বাড়তে পারে। সিংহঃ অপরের উপকার করে সন্মানপ্রাপ্তি। কর্মস্থলে চুপ করে থেকে নিজের কাজ করা আজ উচিত হবে। মায়ের কাছ থেকে সম্পত্তিপ্রাপ্তির যোগ। বায়ুপথে ভ্রমণে বাধা আসতে পারে। বাড়িতে অতিথি সমাবেশ। আজ আপনার গুরুদেব বা ঈশ্বরের প্রতি মন থাকলেই ভাল। প্রতিবেশীর সঙ্গে বিতর্কে যাবেন না ঝঞ্ঝাট হতে পারে। বিচক্ষণ ব্যক্তির পরামর্শ গ্রহণ করুন। প্রেমপ্রণয়ে আঘাত আসতে পারে। ভাই ভাই বিবাদের জন্য মন কষ্ট বাড়তে পারে।   কন্যাঃ অপরের মঙ্গল কামনায় নিজের ভাল হতে পারে। বাড়ির কর্তার কথা না শুনলে বিপদ আসতে পারে। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহের আশঙ্কা। ব্যবসায় বেশি মূলধন বিনিয়োগ না করাই শ্রেয়। অধৈর্য হলে কর্মে ক্ষতি হতে পারে। সম্পত্তি ক্রয় নিয়ে প্রচুর বিচক্ষণতা দেখাতে পারবেন। উপার্জন বাড়ানো নিয়ে গুরুজনের সাথে মতবিরোধ। সন্তানের পড়াশোনা নিয়ে চিন্তা থাকতে পারে। চোখের কোনও সমস্যা বাড়তে পারে। পিতার শরীরের জন্য ডাক্তারের সঙ্গে আলোচনা। তুলাঃ আজ ব্যবসার দিকে কোনও শুভ খবর আসতে চলছে।  অতিরিক্ত পরিশ্রম হতে পারে, ফলে শরীরে ক্লান্তি। পুরনো কোনও বন্ধুর সঙ্গে দেখা হতে পারে।নিজের প্রতিভা দেখানোর সুযোগ পাবেন কিন্তু চুপ থাকুন। কর্মক্ষেত্রে আপনার দায়িত্ব বৃদ্ধি হতে পারে। সন্তানদের জন্য দুশ্চিন্তা বাড়তে পারে। প্রেমে আঘাত পাওয়ার সম্ভবনা। সমাজের জন্য কিছু করার ফলে সন্মান প্রতিপত্তি বাড়তে পারে। দুপুরের পরে ব্যবসার দিকে চাহিদা বাড়তে পারে। বৃশ্চিকঃ আজ শত্রুর আক্রমণ থেকে একটু সাবধান থাকুন। জমি ক্রয়বিক্রয়ে প্রচুর লাভ আসতে পারে। পড়াশুনার দিকে কোনও খারাপ কিছু ঘটতে পারে। কোনও কাজের জন্য নিচু হতে হবে। আর্থিক ব্যাপারে কোনও সুবিধা পেতে পারেন। বাড়িতে কোনও কাজের জন্য সম্মান নষ্ট। গঠনমূলক কোনও কাজের জন্য উন্নতির যোগ দেখা যাচ্ছে। ধনুঃ অসৎ সঙ্গ ত্যাগ না করলে সংসারে তা হানিকারক হবে। কর্মে বদলির সম্ভবনায় মানসিক চাপ বোধ। আয়ব্যয়ের ভারসাম্য রক্ষা করা মুশকিল। আপনার অজান্তে গুপ্ত শত্রু বৃদ্ধি হতে পারে। ব্যবসায় অশুভ সংকেত থাকলেও গুরুজনদের পরামর্শে তা কেটে যাবে। শত্রুপক্ষকে আজ মানিয়ে চলাই শ্রেয়। বিদ্যার্থীদের জন্য উন্নতি অপেক্ষা করছে। পূজাপাঠের জন্য খরচ বাড়তে পারে। মকরঃ প্রবাসী কেউ আসার খবর পেতে পারেন। কোনও বিপদ এলে বুদ্ধি করে চলবার চেষ্টা করুন। দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর প্রেমে সুখের সময়। অভিজ্ঞ ব্যক্তির পরামর্শে সংসার জীবনে জট খুলে যেতে পারে।    ব্যবসায় সফলতা পেতে একটু বেগ পেতে হতে পারে। পারিবারিক ক্ষেত্রে প্রতিকূলতা কেটে যেতে পারে। নিজের পাওনা পেতে ভোগান্তি হতে পারে। সাধু সঙ্গে গিয়ে মনে শান্তি।মাথার কোনও কষ্ট বাড়তে পারে। কুম্ভঃ বাড়িতে হঠাৎ করে প্রচুর অতিথি সমাগম হতে পারে। নিম্নবিদ্যার জন্য সময়টা খুব উপযুক্ত। চাকুরীজীবীদের জন্য সময়টা অনুকূল। আজ আপনার সঙ্গে ভাল কিছু হতে পারে। আজ সারা দিন ব্যবসা নিয়ে মনে একটু ভয় কাজ করবে। সন্তানদের ভাল কিছু খবর আসতে পারে। সংসারে ধৈর্য বজায় রাখতে হবে। রাস্তাঘাটে কোনও সমস্যা বাড়তে পারে। মীনঃ আজ অযথা ব্যয় বেশি হতে পারে। শরীর স্বাস্থ্য মোটামুটি থাকবে। উচ্চ এবং নিম্ন বিদ্যার্থীরা শুভফল লাভ করবে। আত্মীয়দের থেকে খুব সাবধানে থাকুন, ঠকতে হতে পারে। আজ সবার সঙ্গে কথা খুব বুঝে বলবেন অপমানিত হওয়ার সম্ভবনা আছে। কর্ম পরিবর্তনের যোগ দেখা যাচ্ছে। ছোট কারও কাছ থেকে কোনও বিষয়ে সাহায্য পেতে পারেন।ব্যবসার দিকে কোনও নতুন যোগাযোগ হতে পারে। 

  • জেনে নিন পটল চাষের অভিনব পদ্ধতি

    newsbazar24:  পটল একটি জনপ্রিয় উচ্চমূল্য সবজি। পটল বর্তমানে সারা বছর ধরেই পাওয়া যায়।  গ্রীষ্ম এবং বর্ষাকালে বাজারে যখন অন্যান্য সবজি কম পাওয়া যায় তখন পটল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।দেশের সকল এলাকাতেই পটল চাষ করা সম্ভব। পটল চাষে জলবায়ুঃ পটল গাছের দৈহিক বৃদ্ধি এবং ফলনের জন্য উষ্ণ এবং আর্দ্র আবহাওয়া প্রয়োজন। পটলের জন্য উচ্চতর তাপমাত্রা এবং অধিক সূর্যালোক প্রয়োজন হয়। বৃষ্টিপাতের আধিক্য ফুলের পরাগায়নে বিঘ্ন ঘটায় এবং ফলন কমে যায়।  পটল চাষে মাটিঃ জল নিষ্কাশনের সুবিধা আছে এমন উঁচু ও মাঝারী উঁচু জমি এবং বেলে দো-আঁশ থেকে দো-আঁশ মাটি পটল চাষের জন্য উপযোগী। পটল বেশ খরা সহিষ্ণু। তবে জলের ঘাটতি দীর্ঘায়িত হলে ফলন কমে যায়। পটল চাষে রোপণের সময়ঃ বর্ষার শেষে আশ্বিন-কার্তিক মাস এবং শীতের শেষে ফাল্গুন-চৈত্র মাস পটল লাগানোর উপযুক্ত সময়। পটল চাষে জমি তৈরি ও রোপণঃ আমাদের দেশে পটলের চাষ করা হয় বাণিজ্যিকভাবে। পটলের জমি গভীর করে ৪-৫ টি আড়াআড়ি চাষ ও মই দিয়ে মাটি ঝুরঝুরে করে প্রস্তুত করতে হবে। জমি চাষ করার পর বেড তৈরি করে নিতে হবে। বেড পদ্ধতিতে পটল চাষ করা ভাল। এতে বর্ষাকালে ক্ষেত নষ্ট হয় না। সাধারণত একটি বেড ১.০-১.৫ মিটার চওড়া হয়। বেডের মাঝামাঝি এক মিটার থেকে দেড় মিটার পর পর মাদায় চারা রোপণ করতে হবে। এক বেড থেকে আর এক বেডের মাঝে ৭৫ সেমি. নালা রাখতে হবে। মাদা বা পিট তৈরি মাদা বা পিটের আকার- দৈর্ঘ্য- ৫০ সেমি. প্রস্থ- ৫০ সেমি. গভীরতা- ৪০ সেমি. নালা- ৭৫ সেমি. মাদা থেকে মাদার দূরত্ব-১.০-১.৫ মিটার মাদায় গাছের দূরত্ব-৭.০-১০.০ সেমি. গভীরতা-৫০ সেমি. মোথার সংখ্যা ১০,০০০ হেক্টর স্ত্রী গাছপ্রতি ১০টি স্ত্রী গাছের জন্য ১টি পুরুষ গাছ যথাযথ পরাগায়নের ক্ষেত্রে ১০% পুরুষ জাতের গাছ লাগানো উচিত এবং এসব গাছ ক্ষেতের সব অংশে সমানভাবে ছড়িয়ে লাগাতে হবে। পটল চাষে সার প্রয়োগ পদ্ধতিঃ পটলের ভাল ফলন পেতে হলে গোবর বা আবর্জনা সার ভালোভাবে পচানো দরকার। পটল দীর্ঘমেয়াদি সবজি ফসল, এ জন্য মে মাস থেকে ফসল সংগ্রহের পর প্রতি মাসে হেক্টরপ্রতি ১৮ কেজি ইউরিয়া, ২৫ কেজি টিএসপি এবং ১৪ কেজি এমপি সার উপরি প্রয়োগ করা প্রয়োজন। এতে ফলন বেশি হবে। পটল ক্ষেতের পরিচর্যাঃ পটল একটি লতানো উদ্ভিদ। পটল গাছ বৃদ্ধি পাওয়ার সাথে সাথে জমিতে মাচা তৈরি করে ইহার গোড়ায় বাঁশের কঞ্চি বা কাঠি পুঁতে মাচায় তুলে দিতে হবে। এক মিটার উচ্চতায় মাচা দিলে পটলের ফলন প্রায় দ্বিগুণ হয়। পটলের মাচা দুই ভাবে দেওয়া যায়। বাঁশের তৈরি আনুভূমিক এবং রশি দ্বারা তৈরি খাড়া বা উল্লম্ব। মাচার দৈর্ঘ ও প্রস্থ হবে বেডের সমান। পটলের মাচা বেশ খরচ সাপেক্ষ। তাই অনেক এলাকায় পটল চাষীরা বাউনির বদলে মাটির উপর খর-কুটা বা কচুরিপানা দিয়ে তার উপর গাছ তুলে দেয়। এতেও ভাল ফলন পাওয়া যায় এবং উৎপাদন খরচও কম হয়। প্রতিবার ফসল সংগ্রহের পর মরা, রোগ ও পোকা আক্রান্ত পাতা ও শাখা ছাঁটাই করতে হবে। এতে ফলধারী নতুন শাখার সংখ্যা বেড়ে যায় এবং ফলন বেশি হয়। পটল চাষে আগাছা দমনঃ পটলের জমিতে নানা ধরণের আগাছা জন্ম নেয়। এসব আগাছা জমি থেকে খাদ্য গ্রহণ করে পটল গাছকে দুর্বল করে দেয় ফলে পটলের ফলন কমে যায়। তাই পটলের জমি সবসময় আগাছামুক্ত রাখতে হবে। পটল চাষে পরাগায়নঃ পটল চাষের ক্ষেত্রে কৃত্রিম পরাগায়ন একটি জরুরি বিষয়। চারা লাগানোর তিন মাসের মধ্যে পটলের ফুল আসতে শুরু করে। পটল একটি পরপরাগায়িত উদ্ভিদ। স্ত্রী ফুল ও পুরুষ ফুল আলাদা গাছে ফোটে। কাজেই পরাগায়ন না হলে পটলের ফলন পাওয়া যাবে না। পটলের পরাগায়ন সাধারণত বাতাস এবং কীটপতঙ্গের দ্বারা হয়ে থাকে। তবে জমিতে পুরুষ ফুলের সংখ্যা খুব কমে গেলে কৃত্রিমভাবে পরাগায়ন করা প্রয়োজন হয়। পটল গাছে পরাগায়নের জন্য স্ত্রী ও পুরুষ ফুল দরকার। একটি সদ্য ফোটা পুরুষ ফুল তুলে নিন এবং পুংকেশর নির্বাচন করে ফুলের পাপড়িগুলো ছিঁড়ে ফেলুন। তারপর প্রতিটি স্ত্রী ফুলের গর্ভকেশরের মুন্ডু পুংকেশর দ্বারা আস্তে আস্তে ২-৩ বার ছুঁয়ে দিন। এর ফলে গর্ভকেশরে পুংকেশর থেকে রেণু আটকে পরাগায়ন হবে। একটি পুরুষ ফুল দিয়ে সাধারণত ৭-৮টি স্ত্রী ফুলে পরাগায়ন করা সম্ভব। তা ছাড়া পুরুষ ফুল সংগ্রহ করে তা থেকে পরাগরেণু আলাদা করে জলযুক্ত একটি প্লাস্টিক পাত্রে নিয়ে হালকা ঝাকি দিয়ে পরাগরেণু মিশ্রিত করে টিউবের মাধ্যমে স্ত্রী ফুলের গর্ভমুণ্ডের ওপর ২-৩ ফোঁটা ব্যবহার করেও পরাগায়ন সম্পন্ন করা যায়। এ পদ্ধতিতে পটলের ফলন অনেক বৃদ্ধি পায়। মুড়ি ফসলঃ পটল গাছ থেকে প্রথম বছর ফসল সংগ্রহ করার পর গাছের গোড়া নষ্ট না করে রেখে দিয়ে পরবর্তী বছর পরিচর্যার মাধ্যমে গুড়িচারা থেকে যে ফসল পাওয়া যায় তাকেই মুড়ি ফসল বলে। পটল চাষে রোগ প্রতিরোধঃ ফলের মাছিপোকা পটলের বেশ ক্ষতি করে। স্ত্রী পোকা কচি ফলের ত্বক ছিদ্র করে ভিতরে ডিম পাড়ে। ডিম ফুটে কীড়া বেড় হয়ে ফলের ভিতরের নরম অংশ খায়। এতে পটল খাওয়ার অনুপযোগী হয়ে পড়ে এবং অনেক সময় ফল ঝরে যায়। প্রতিকারঃ জমি পরিষ্কার রাখতে হবে। আক্রান্ত ফল দেখা মাত্র সংগ্রহ করে মাটিতে পুতে ফেলতে হবে। বিষটোপ বা ফেরোমন ফাঁদ ব্যবহার করে পোকা দমন করতে হবে। নাহলে কীটনাশক ব্যবহার করতে হবে। কাঁঠালে পোকাঃ পূর্ণাঙ্গ পোকা ও কীড়া পাতার সবুজ অংশ খেয়ে জালের মতো ঝাঝরা করে ফেলতে পারে। ফলে পাতা শুকিয়ে মরে যায় এবং গাছ আস্তে আস্তে পাতাশূণ্য হয়ে পড়ে। আক্রমণ তীব্র হলে গাছ মারা যায়। প্রতিকারঃ এ পোকার আক্রমণ দেখামাত্রই পাতাসহ পোকার ডিম ও কীড়া সংগ্রহ করে নষ্ট করে ফেলতে হবে। নিম বীজের মিহিগুড়া ৩০-৪০ গ্রাম এক লিটার জলে ১২-১৪ ঘন্টা ভিজিয়ে রেখে জল ছেকে নিয়ে ঐ জল আক্রান্ত গাছে স্প্রে করলে পোকা দমন হয়। অথবা কীটনাশক ব্যবহার করতে হবে। পটল চাষে ফলনঃ জাত ও পরিচর্যার উপর পটলের ফলন নির্ভর করে। আধুনিক জাতগুলো চাষ করলে এবং সঠিক পরিচর্যা করতে পারলে বিঘাপ্রতি ৪০০০ থেকে ৫০০০ কেজি ফলন পাওয়া যায়। পটল সংগ্রহঃ পটল কচি অবস্থায় সংগ্রহ করা উচিত। জাতভেদে ফুল ফোটার ১০-১২ দিন পর পটল সংগ্রহের উপযোগী হয়। পটল এমন পর্যায়ে সংগ্রহ করা উচিত যখন ফলটি পূর্ণ আকার প্রাপ্ত হয়েছে কিন্তু পরিপক্ক হয়নি।

  • আপনার আজকের দিন কেমন কাটবে ? জানুন আজকের রাশিফল(সোমবার, ৩ জুন ২০১৯)

    newsbazar24:  মেষ: কোনও ভুল কাজের জন্য আপমানিত হতে হবে। পড়াশোনার জন্য মনে ভয় ভাব। স্ত্রীর সঙ্গে কোনও ছোট কারণে বিবাদ। ব্যবসার জন্য ঋণ নিতে হতে পারে। সম্পত্তি কেনা বেচার ভাল দিন আজ। আপনার জন্য কেউ আঘাত পেতে পারে। ব্যবসায় বাড়তি লাভের জন্য আনন্দ। চাকরির জায়গায় সুনাম বাড়তে পারে। চিকিৎসার জন্য খরচ বাড়তে পারে। কানে কোনও সমস্যা হতে পারে। বৃষ: লোকের আলোচনার পাত্র হতে পারেন। আজ কোনও নতুন কাজের জন্য আনন্দ বৃদ্ধি। ব্যবসায় সময় ভাল নয়। ভাল কাজে বাধা। পড়াশোনার জন্য বিশেষ সুযোগ মিলতে পারে। মাথার যন্ত্রণা বাড়বে। পাওনা অর্থ আদায়ে দেরি হতে পারে। কোনও উপহার পেতে পারেন আজ। শরীরে কোনও কষ্ট বাড়তে পারে। স্ত্রীর জন্য মানসিক চাপ বাড়বে। বাড়তি কোনও খরচ হতে পারে। লেখাপড়ায় চাপ বাড়তে পারে। মিথুন: রাজনীতির লোকেদের জন্য কোনও চাপ আসতে পারে। আজ রাগের মাত্রা ঠিক রাখুন। প্রেমের জন্য বাড়িতে বিবাদ। ব্যবসায় ভাল ফল পাবেন না। চাকরির জায়গায় কাজের চাপ বাড়বে। বাবার শরীর নিয়ে চিন্তা ও খরচ হবে। নিজের মতে চলবার জন্য বাড়িতে বিবাদ। শরীরের দিকে নজর দিন, শরীর খারাপ হওয়ার আশঙ্কা আছে। বাড়তি কোনও খরচের জন্য চিন্তা। বাড়িতে কোনও অতিথি আসতে পারে। কর্কট: গবেষণার জন্য দিনটি খুব ভাল করে কাজে লাগান। ব্যবসায় বাড়তি লাভ হতে পারে। নিজের বুদ্ধির জোরে শত্রুর মোকাবিলা। বাড়ির কোনও কাজের জন্য ঋণ নিতে হতে পারে। বাড়িতে কোথাও বেড়াতে যাওয়া নিয়ে আলোচনা। আজ কারও উপকার করে সুনাম পাবেন। তবে ব্যবসার দিকে একটু বাধা আসতে পারে। দুপুরের পরে বাড়তি কোনও ব্যবসা থেকে লাভ পেতে পারেন। দূরের কোনও অতিথি আসায় আনন্দ। সিংহ: কাজ নিয়ে কোনও নতুন আলোচনা। ভাল কাজ করেও আজ সুনাম পাবেন না। নতুন কোনও বন্ধু পেতে পারেন। ব্যবসায় কাজের চাপ বৃদ্ধি। প্রেমের জন্য অশান্তি বাড়বে। অসৎ লোক থেকে সাবধান। রোগ থেকে মুক্তি লাভ। অপরিচিত ব্যক্তিদের থেকে সাবধান থাকুন। ব্যবসায় সম্মান ও লাভ বাড়তে পারে। পেটের সমস্যার জন্য আজ কাজের ক্ষতি হতে পারে। নাক, কা‌ন, গলা নিয়ে কষ্ট বাড়তে পারে। কন্যা: প্রেমের ব্যাপারে বিরহ বেদনা বাড়তে পারে। পূজা পাঠের জন্য খরচ বৃদ্ধি। প্রেমিকার কাছ থেকে প্রচুর ভালবাসা পাবেন। পড়াশোনায় অভিজ্ঞ ব্যক্তির সাহায্য পাবেন। বন্ধুর জন্য বিপদ থেকে উদ্ধার। রক্তচাপ বাড়বে। আজ সকাল থেকে কোমরের যন্ত্রনায় কষ্ট পেতে পারেন। ব্যবসায় শত্রুর জন্য ক্ষতি হতে পারে। প্রেমের জন্য মনে আজ খুব আনন্দ থাকবে। বাড়িতে অনেক অতিথি আসতে পারে। বাবার সঙ্গে কোনও দরকারি বিষয়ে আলোচনা। তুলা: আজ কাজে খুব উৎসাহ পাবেন। আজ সকালে অতিরিক্ত খরচের আশঙ্কা। শিক্ষকদের জন্য আনন্দের খবর আসতে পারে। প্রেমের ব্যাপারে চাপ বৃদ্ধি। প্রতিবেশীর সঙ্গে কোনও বিবাদে যাবেন না। যাঁরা গঠনমূলক কাজ করেন, তাঁদের জন্য কোনও সুযোগ আসতে পারে। নতুন কোনও বন্ধুর জন্য মনে শান্তি। স্ত্রীর কোনও কাজের জন্য শান্তি মিলতে পারে। আর্থিক চাপ থাকবে। মাথার যন্ত্রণা বাড়তে পারে। বৃশ্চিক: কোনও মহিলার জন্য বাড়িতে বিবাদের আশঙ্কা। ব্যবসায় ভাল কিছু ঘটতে পারে। চাকরির জায়গায় উন্নতির যোগাযোগ। আজ অযথা ব্যয় হতে পারে। কোনও কাজে বার বার চেষ্টা করা বৃথা হবে। শরীরের কোনও কষ্ট অবহেলা করবেন না। আইনি কোনও কাজের জন্য ভাল সুযোগ আসতে পারে। চিকিৎসার খরচের জন্য অর্থ ব্যয় হতে পারে। ধনু: স্ত্রীর সঙ্গে পুরনো কোনও অশান্তি আবার নতুন করে আসতে পারে। বিলাসিতার জন্য খরচ বাড়তে পারে। প্রেমে বিবাদের জন্য মানসিক কষ্ট। ব্যবসায় মানসিক শান্তি পেতে পারেন। বিবাহের ব্যাপারে কোনও যোগাযোগ আসতে পারে। আজ একটু সাবধানে থাকুন, কোনও বিপদ আসতে পারে। কোনও আত্মীয়ের সঙ্গে বিবাদ হতে পারে। বিবাহিত জীবনে সুখের খবর আসতে পারে। আর্থিক ব্যাপারে কোনও সুবিধা পেতে পারেন। মকর: আজ সম্মান নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা। সারা দিন কোনও কাজে ব্যস্ত থাকতে হবে। চাকরির শুভ যোগাযোগ আসতে পারে। বাবার সঙ্গে তর্ক হওয়ার জন্য মন খারাপ। আজ ভ্রমণে কোনও বাধা আসতে পারে। সারা দিন কোনও প্রিয় জনের সঙ্গে থাকার জন্য আনন্দ। খেলাধূলায় শুভ পরিবর্তন। পেটের কোনও সমস্যা হতে পারে। রক্ত জনিত কোনও রোগ হওয়ার আশঙ্কা। কুম্ভ: মা-বাবার সঙ্গে কোনও ছোট কারণে তর্ক। ব্যবসায় বাড়তি যোগাযোগ। দুপুরের পরে কিছু পাওনা আদায় হতে পারে। সম্পত্তির ব্যাপারে চাপ বৃদ্ধি। অপরের কোনও উপকারের জন্য খরচ বৃদ্ধি। ব্যবসায় কিছু উন্নতি। সংসারে একটু শান্তি দেখতে পাবেন আজ। চাকরির জায়গায় জটিলতা বাড়তে পারে। দূরের কোনও বন্ধুর খবর পেয়ে আনন্দ। মীন: বাড়িতে প্রবল অশান্তির যোগ রয়েছে। বুদ্ধির ভুলের জন্য ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা। ব্যবসায় মহাজনের সঙ্গে বিশেষ আলোচনা। বাড়িতে অনেক বন্ধু আসতে পারে। শরীর নিয়ে কোনও কষ্ট। বুদ্ধির জোরে শত্রু জয়। ভাই-বোনে সম্পত্তির ব্যাপারে বিবাদ। সম্মান নিয়ে টানাটানির আশঙ্কা। প্রেমের কোনও সম্পর্কে উন্নতি হতে পারে। বাড়িতে কোনও অতিথি আসতে পারে। আজ কোনও ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে। কোমরের যন্ত্রণা বাড়তে পারে।

  • আপনার আজকের দিন কেমন কাটবে ? জানুন আজকের রাশিফল(রবিবার ২ জুন ২০১৯)

    newsbazar24:  মেষ: সকালের দিকে রক্তপাতের আশঙ্কা আছে। আজ ব্যবসায় কোনও শুভ খবর আসতে পারে। অতিরিক্ত পরিশ্রম হতে পারে, ফলে শরীরে ক্লান্তি বাড়বে। নিজের প্রতিভা দেখানোর সুযোগ পাবেন। কর্মক্ষেত্রে আপনার দায়িত্ব বৃদ্ধি পেতে পারে। সন্তানদের জন্য দুশ্চিন্তা বাড়তে পারে। প্রেমে আঘাত পাওয়ার আশঙ্কা। সমাজের জন্য কিছু করার ফলে সম্মান ও প্রতিপত্তি বাড়তে পারে। বাইরের কোনও লোকের জন্য খরচ বাড়তে পারে। বৃষঃ আজ কাজের ব্যাপারে কোনও শুভ খবর আসতে পারে। শত্রুর আক্রমণ থেকে আজ সাবধান থাকুন। জমি ক্রয় বিক্রয়ে প্রচুর লাভ হওয়ায় আনন্দ। পড়াশোনায় খারাপ কিছু ঘটতে পারে। কোনও কাজের জন্য নিচু হতে হবে। ব্যবসায় মহাজনের সঙ্গে বিবাদ। আর্থিক ব্যাপারে সুবিধা পেতে পারেন। বাড়িতে কোনও কাজের জন্য সম্মান নষ্ট। গঠনমূলক কোনও কাজের জন্য উন্নতির যোগ দেখা যাচ্ছে। মিথুনঃ আজ বাড়িতে কোনও দামি জিনিস নষ্ট হতে পারে। অসৎ সঙ্গ ত্যাগ না করলে সংসারে সমস্যা আসতে পারে। কর্মে বদলির সম্ভাবনায় মানসিক চাপ বোধ। আয় ও ব্যয়ের ভারসাম্য রক্ষা করা মুশকিল হবে। আপনার অজান্তে গুপ্ত শত্রু বৃদ্ধি পেতে পারে। ব্যবসায় অশুভ সঙ্কেত থাকলেও গুরুজনদের পরামর্শে কেটে যাবে। প্রতিবেশীর উস্কানিতে সংসারে ঝঞ্ঝাট। শত্রু পক্ষকে আজ মানিয়ে চলাই শ্রেয়। বিদ্যার্থীদের উন্নতি অপেক্ষা করছে। কর্কটঃ আজ সকাল থেকে ভাইয়ের সঙ্গে বিবাদ বাড়তে পারে। প্রবাসী কেউ আসার খবর পেয়ে আনন্দ। আজ কোনও বিপদ এলে বুদ্ধি স্থির রাখুন। দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর প্রেমে সুখের সময়। অভিজ্ঞ ব্যক্তির পরামর্শে সংসার জীবনে জট খুলে যেতে পারে। ব্যবসায় সাফল্য পেতে একটু বেগ পেতে হতে পারে। পারিবারিক ক্ষেত্রে প্রতিকূলতা কেটে যেতে পারে। নিজের পাওনা পেতে ভোগান্তি হতে পারে। সাধু সঙ্গে গিয়ে মনে শান্তি। আত্মীয় নিয়ে চিন্তা। সিংহঃ আজ রোগের জন্য কষ্ট বাড়তে পারে। বাড়িতে হঠাৎ করে প্রচুর অতিথি সমাগম হওয়ায় চিন্তা। নিম্ন বিদ্যার জন্য সময়টা খুব উপযুক্ত। চাকরিজীবীদের জন্য সময়টা অনুকূল। আজ আপনার সঙ্গে ভাল কিছু হতে পারে। আজ সারা দিন ব্যবসা নিয়ে মনে একটু ভয় কাজ করবে। সন্তানদের ভাল কিছু খবর আসতে পারে। সংসারে ধৈর্য বজায় রাখতে হবে। মায়ের শরীরের জন্য খরচ বৃদ্ধি। কন্যাঃ ধর্মের ব্যাপারে কোনও আলোচনা থেকে মনের শান্তি বাড়তে পারে। আজ অযথা ব্যয় বেশি হতে পারে। শরীর স্বাস্থ্য মোটামুটি ভাল থাকবে। উচ্চ এবং নিম্ন বিদ্যার্থীরা শুভফল লাভ করবেন। আত্মীয়দের থেকে খুব সাবধানে থাকুন, ঠকতে হতে পারে। আজ সবার সঙ্গে কথা খুব বুঝে বলবেন, অপমানিত হওয়ার আশঙ্কা আছে। কর্ম পরিবর্তনের যোগ দেখা যাচ্ছে। বয়সে ছোট কারও কাছ থেকে কোনও বিষয়ে সাহায্য পেতে পারেন। তুলাঃ কোনও নতুন সম্পর্ক গড়ে উঠতে পারে। চিন্তা বৃদ্ধি পাবে। আজ সারা দিন নানা দিক থেকে কর্মের সুযোগ আসতে পারে। বাবার শরীর নিয়ে একটু ভাবনা হতে পারে। প্রেমে বাধা থাকলেও সঙ্গে আনন্দও থাকবে। বিদ্যার্থীদের নতুন যোগাযোগ আসতে পারে। আজ সহকর্মীর ভাল ব্যবহারে নিজেকে ভাসিয়ে দেবেন না। বাড়ি তৈরির শুভ সময় দেখা যাচ্ছে। পেটের সমস্যা একটু থাকবে। পরিবারে পরিস্থিতির সঙ্গে নিজেকে মানিয়ে নিন। বৃশ্চিকঃ কর্মস্থানে একটু সাবধানে কাজ করুন, কোনও রকম আঘাত লাগতে পারে। শিল্পীদের জন্য সামনের সময়টা খুব উপযুক্ত। ভ্রমণের জন্য উৎসাহিত হতে পারেন। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সুসম্পর্ক থাকবে। স্বাস্থ্য ভাল থাকবে না। আজ কোনও কিছু পাওয়ার জন্য ভীষণ মনে জেদ সৃষ্টি হতে পারে। আজ কাজের জায়গায় প্রচুর সুনাম বৃদ্ধি পাবে। দীর্ঘ দিনের কোনও ইচ্ছা পূর্ণ হতে পারে। সন্তানদের জন্য স্ত্রীর সঙ্গে মনোমালিন্য। ধনুঃ আজ সকাল থেকে বুকের যন্ত্রণায় কষ্ট পেতে পারেন। অপরের কোনও কথার জন্য অশান্তি বাড়তে পারে। আজ পুরনো দিনের কোনও আশা ভঙ্গ হতে পারে। আজ সন্তানের কোনও খারাপ অভ্যাস আপনাকে অবাক করবে। আজ বিনিয়োগী ব্যবসার ফল ভাল পাওয়া যাবে। সঙ্গীতচর্চায় হাল ছাড়লে মুশকিল। উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে সময়টা খুব প্রতিকূল। অতিরিক্ত রাগের ফলে সংসারে অশান্তির যোগ দেখা যাচ্ছে। মকরঃ মামলার ব্যাপারে কোনও খরচ। রাস্তায় যানবাহন চলাফেরায় বাড়তি সতর্কতা প্রয়োজন। নিজের দায়িত্ব পালন করতে না পারায় সংসারে অশান্তি। পুরনো পাওনা আদায় হতে পারে। আজ সারা দিন কোনও কারণে চিত্ত চাঞ্চল্য থাকবে। কারও কাছ থেকে খুব মূল্যবান বস্তু পেতে পারেন। হতাশার জন্য শরীর খারাপ হওয়ার আশঙ্কা। কুম্ভঃ কর্মচারী নিয়ে কোনও বিবাদ বাধতে পারে। উচ্চপদস্থ ব্যক্তির সঙ্গে দেখা হওয়ায় উপকার। কারও বিয়ের খবরে মনে আনন্দের উদয়। যানবাহনে ওঠা নামায় বিপদের আশঙ্কা। কোমরের যন্ত্রণায় কষ্ট পেতে পারেন। উচ্চাশা থাকলে আজ সেটা সফল হতে পারে। মামলা মোকদ্দমা থেকে নিজেকে বাঁচিয়ে চলাই ভাল। সাংসারিক শান্তি বজায় থাকবে। পুরনো শত্রুর কাছ থেকে বন্ধুর মতো ব্যবহার পাবেন। মীনঃ পড়াশোনার জন্য দিনটি খুব ভাল। চাকরিজীবীদের জন্য সময়টা বিশেষ অনুকূল। কাউকে নিজের দুর্বলতা দেখালে আজ তিনি সুযোগ নিতে পারেন। মানসিক কোনও উদ্বেগ থাকলে সেটা কেটে যেতে পারে। দাম্পত্য কলহ সৃষ্টি হতে পারে। আজ সারা দিন কাজ কর্ম বা ব্যবসা নিয়ে কোনও সমস্যা থাকবে না। বাড়ির পরিবেশ আপনার অনুকূলে থাকবে। বাড়ির বড়দের শরীর নিয়ে একটু চিন্তা থাকতে পারে। আপনি আপনার ক্ষমতা দেখানোর সুযোগ পাবেন।

  • জানেন কি টমেটোর চাষ পদ্ধতি ও বাজারে এর চাহিদা ? জেনে নিন

    newsbazar24: টমেটো একটি ফল হলেও সব্জি হিসেবেই সারাবিশ্বে এটি বেশি পরিচিত।এর ইংরেজি নাম Tomato ও বৈজ্ঞানিক নাম Solanum lycopersicum. সব্জি এবং সালাদ হিসেবে ব্যাবহার করা টমেটোকে।চাষীরা দেশের বাজারে টমেটোর চাহিদা মিটিয়ে বাহিরে রপ্তানি করেও অনেক অর্থ উপার্জন করছে। টমেটোর পুষ্টিগুণ টমেটোতে আমিষ, ক্যালসিয়াম, ভিটামিন ‘এ’ ও ভিটামিন ‘সি’ আছে। তাছাড়া, লাইকোপেন নামে টমেটোতে বিশেষ এক ধরণের উপাদান রয়েছে যা পাকস্থলী, ফুসফুস, অগ্ন্যাশয়, কোলন, স্তন, প্রোস্টেট, মূত্রাশয় ইত্যাদি অঙ্গের ক্যান্সার প্রতিরোধে সাহায্য করে থাকে। টমেটোর চাষ পদ্ধতি শীতকালীন সবজি এবং ফসল হলেও এর কয়েকটি জাত গ্রীষ্ম ও বর্ষাকালে চাষ করা যায়। তবে আমাদের দেশের প্রায় সব অঞ্চলেই শীতকালীন টমেটো চাষ করা হয়ে থাকে। আমাদের দেশের অনেক স্থানে এখন ব্যবসায়িক ভিত্তিতে টমেটো চাষ ও বাজারজাত করা হয়। টমেটোর বীজ সংগ্রহ টমেটোর বীজ সংগ্রহের জন্য প্রথমত পাকা ও পুষ্ট টমেটো সংগ্রহ করতে হবে। তারপর বালতি বা গামলাতে ২-৩ দিন রেখে দিতে হবে। বীজ মাঝে মাঝে নাড়াচাড়া করতে হবে যাতে বীজগুলো ফলের আঠালো অংশ থেকে আলাদা হয়ে যায়। তারপর চালনির সাহায্যে বীজ আলাদা করে ধুয়ে শুকিয়ে নিতে হবে। জমি তৈরি ১. টমেটো গ্রীষ্মকালে চাষের জন্য ২০-২৫ সে.মি. উঁচু ও ২৩০ সে.মি. চওড়া বেড তৈরি করে নিতে হবে। ২. টমেটো চাষের জন্য জমি ৪-৫ বার চাষ দিয়ে মাটি ঝরঝরে করে নিতে হবে। ৩. সেচের সুবিধার জন্য দু’টি বেডের মাঝে ৩০ সে.মি. নালা রাখলে ভাল। টমেটোর বীজ বপন ও চারা রোপণ পদ্ধতি ১. প্রত্যেকটি বেডে দুই সারি করে চারা রোপণ করতে হবে। এক সারি থেকে অন্য সারির দূরত্ব ৬০ সে.মি. রাখতে হবে। ২. টমেটোর বীজ বপনের ৩০-৩৫ দিন পর চারা রোপণের উপযোগী হয়। ৩. প্রতি সারিতে চারার দূরত্ব ৪০ সে.মি. রেখে ৩০-৩৫ দিন বয়সের চারা রোপণ করতে হবে। সার প্রয়োগ পদ্ধতি টমেটোর মাটি পরীক্ষা করে মাটির ধরণ অনুযায়ী সার প্রয়োগ করতে হবে। তবে জৈব সার ব্যবহার করলে মাটির গুণাগুণ ভালো থাকে। গবাদি পশুর থেকে প্রাপ্ত গোবর ও বিভিন্ন পঁচা আবর্জনা সার হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে। টমেটোর চাহিদা ও বাজার সম্ভাবনা  আমাদের দেশে টমেটোর ব্যাপক চাহিদা রয়েছে।টমেটো চাষ করে পরিবারের পুষ্টির চাহিদা পূরণের পাশাপাশি বাড়তি আয় করা সম্ভব। এছাড়া দেশের চাহিদা মেটানোর পর অতিরিক্ত উৎপাদন বিদেশে রপ্তানি করা সম্ভব। এক্ষেত্রে বিভিন্ন রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান সহায়তা দিয়ে থাকে।

  • জেনে নিন মাছ চাষের আধুনিক কৌশল

    newsbazar24: মাছ হচ্ছে প্রাণিজ আমিষের অন্যতম উৎস। কর্মসংস্থান, বৈদেশিক মুদ্রা উপার্জন এবং পুষ্টি সরবরাহে মৎস্য সম্পদের বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। মাছ চাষের বিভিন্ন পদ্ধতি আছে, যেমন- একই পুকুরে নানা জাতের মাছ চাষ করা যায়, খাল ও ডোবায় মাছ চাষ করা যায়, আবার চৌবাচ্চায়ও মাছের চাষ করা যায়। সাধারণত মাছের জন্য পুকুরে খাবার উৎপাদনই হচ্ছে মাছ চাষ। এটি কৃষির মতোই একটি চাষাবাদ পদ্ধতি। আবার কোনো নির্দিষ্ট জলাশয়ে/জলসীমায় পরিকল্পিত উপায়ে স্বল্প পুঁজি, অল্প সময় ও লাগসই প্রযুক্তির মাধ্যমে মাছের উৎপাদনকে মাছ চাষ বলে। মূলত বিভিন্ন নিয়ম মেনে প্রাকৃতিক উৎপাদনের চেয়ে অধিক মাছ উৎপাদনই মাছ চাষ।এসব মাছ খুব দ্রুত বাড়ে; খাদ্য ও জায়গার জন্য একে অন্যের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে না; পুকুরে বেশি সংখ্যায় চাষ করা যায়; জলের সব স্তর থেকে খাবার গ্রহণ করে, তাই পুকুরের পরিবেশ ভালো থাকে; এসব মাছ খেতে খুব সুস্বাদু; বাজারে এসব মাছের প্রচুর চাহিদা আছে; সহজে রোগাক্রান্ত হয় না। বাণিজ্যিকভাবে মাছ চাষের জন্য পুকুরকে প্রস্তুত করে নেওয়া ভালো। কারণ একটি পুকুর মাছ চাষের উপযুক্ত না হলে এবং পুকুর প্রস্তুত না করে চাষ শুরু করে দিলে বিনিয়োগ ব্যাপক ঝুঁকির মধ্যে পড়বে। ঝুঁকি এড়াতে এবং লভ্যাংশ নিশ্চিত করতেই বৈজ্ঞানিক কৌশল অনুসরণ করে পুকুর প্রস্তুত করতে হবে।   মাছ চাষের জন্য পুকুর প্রস্তুতি ১. পুকুরের পাড় ও তলা মেরামত করা; ২. পাড়ের ঝোপ জঙ্গল পরিষ্কার করা; ৩. জলজ আগাছা পরিষ্কার করা; ৪. রাক্ষুসে ও অবাঞ্ছিত মাছ দূর করা; ১. পুকুর শুকানো; ২. বার বার জাল টানা; ৩. ওষুধ প্রয়োগ- রোটেনন। পরিমাণ ২৫-৩০ গ্রাম/শতাংশ/ফুট। এর বিষক্রিয়ার মেয়াদ ৭-১০ দিন। প্রয়োগের সময় রোদ্রজ্জ্বল দিনে। ২. ফসটক্সিন/কুইফস/সেলফস ৩ গ্রাম/শতাংশ/ ফুট। মেয়াদ এবং সময় পূর্বের মতো; ৫. চুন প্রয়োগ: কারণ/কাজ/উপকারিতা সাধারণত ১ কেজি চুন/শতাংশ প্রয়োগ করতে যদি ঢ়ঐ এর মান ৭ এর আশেপাশে থাকে। বছরে সাধারণত ২ বার চুন প্রয়োগ করতে হয়। একবার পুকুর তৈরির সময়, দ্বিতীয় বার শীতের শুরুতে কার্র্তিক অগ্রহায়ণ মাসে।   চুন প্রয়োগের উপকারিতা ও সাবধানতা ১. জল পরিষ্কার করা/ঘোলাটে ভাব দূর করা; pH নিয়ন্ত্রণ করে; রোগ জীবাণু ধ্বংস করে; মাছের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়; বিষাক্ত গ্যাস দূর করে; শ্যাওলা নিয়ন্ত্রণ করে। চুন কখনও প্লাস্টিকের কিছুতে গোলানো যাবে না; পুকুরে মাছ থাকা অবস্থায় চুন গোলানোর ২ দিন পর পুকুরে দিতে হয়; গোলানোর সময় এবং দেয়ার সময় খেয়াল রাখতে হবে যেন নাকে মুখে ঢুকে না যায়; পানি নাড়া চাড়া করে দিতে হবে; সার প্রয়োগ : সার প্রয়োগ প্রাকৃতিক খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধিতে সহায়ক; জৈব সার/প্রাকৃতিক যা কিনা প্রাণীকণা তৈরি করে। গোবর, হাঁস-মুরগির বিষ্ঠা, কম্পোস্ট; অজৈব বা রাসায়নিক বা কৃত্রিম সার ইউরিয়া, টিএসপি, এমওপি যা উদ্ভিদ কণা তৈরি করে।   নতুন পুকুরের ক্ষেত্রে সার প্রয়োগ মাত্রা ১. প্রতি শতাংশে গোবর ৫-৭ কেজি অথবা ২. হাঁস মুরগির বিষ্ঠা ৫-৬ কেজি অথবা ৩. কম্পোস্ট ১০-১২ কেজি এবং ইউরিয়া ১০০-১৫০ গ্রাম টিএসপি ৫০-৭৫ গ্রাম।   পুকুর প্রস্তুতির আনুমানিক মোট সময় * পাড় ও তলা+ঝোপ জঙ্গল পরিষ্কার = ২ দিন; ক্স রাক্ষুসে মাছ পরিষ্কার = ৩ দিন (৭-১০ দিন পর্যন্ত বিষক্রিয়া থাকে)। * চুন প্রয়োগ = ৩-৫ দিন; * সার প্রয়োগ = ৭ দিন; এরপর পোনা ছাড়া হবে। গড়ে মোট ১৭ দিন (২+৩+৫+৭)। পুকুরে চাষযোগ্য মাছের বৈশিষ্ট্য- দ্রুতবর্ধনশীল; রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি; বাজার চাহিদা বেশি।   পুকুর নির্বাচন  ১. পুকুরটি খোলামেলা জায়গায় এবং বাড়ির আশপাশে হতে হবে। ২. মাটির গুণাগুণ পুকুরের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। সাধারণত দো-আঁশ, এঁটেল দো-আঁশ ও এঁটেল মাটি পুকুরের জন্য ভালো। ৩. পুকুরের আয়তন কমপক্ষে ১০ শতাংশ হতে হবে। ৩০ শতাংশ থেকে ১ একর আকারের পুকুর মাছ চাষের জন্য বেশি উপযোগী। ৪. পুকুরের গভীরতা ২-৩ মিটার রাখতে হবে। ৫. পুকুর পাড়ে বড় গাছ বা ঝোপ-ঝাড় থাকা যাবে না।   পুকুর প্রস্তুত পোনা মাছ ছাড়ার আগে পুকুর তৈরি করে নিতে হবে। সাধারণত পুরনো পুকুরই তৈরি করে নেয়া হয়। পুকুর প্রস্তুতির কাজটি পর্যায়ক্রমে করতে হবে: ১ম ধাপ : জলজ আগাছা-কচুরিপানা, কলমিলতা, হেলেঞ্চা শেকড়সহ তুলে ফেলতে হবে; ২য় ধাপ : শোল, গজার, বোয়াল, টাকি রাক্ষুসে মাছ এবং অবাঞ্ছিত মাছ মলা, ঢেলা, চান্দা, পুঁটি সম্পূর্ণভাবে সরিয়ে ফেলতে হবে; ৩য় ধাপ : এরপর প্রতি শতকে ১ কেজি হারে চুন পুকুরে ছিটিয়ে দিতে হবে। পুকুরে জল থাকলে ড্রামে বা বালতিতে গুলে ঠান্ডা করে পুরো পুকুরে ছিটিয়ে দিতে হবে; ৪র্থ ধাপ : মাটি ও জলের গুণাগুণ বিবেচনায় রেখে চুন দেয়ার এক সপ্তাহ পর জৈবসার দিতে হবে; ৫ম ধাপ : পুকুর শুকনা হলে পুকুরে সার, চুন, গোবর সব ছিটিয়ে দিয়ে লাঙল দিয়ে চাষ করে জল ঢুকাতে হবে; ৬ষ্ঠ ধাপ : পোনা মজুদের আগে পুকুরে ক্ষতিকর পোকামাকড় থাকলে তা মেরে ফেলতে হবে; ৭ম ধাপ : পুকুরে পর্যাপ্ত প্রাকৃতিক খাদ্য জন্মালে পোনা মজুদ করতে হবে। মৃত্যুর হার যেন কম থাকে সেজন্য পোনার আকার ৮-১২ সেন্টিমিটার হতে হবে।  ৮ম ধাপ : এর পর নিয়মমতো পুকুরে পোনা ছাড়তে হবে। এক্ষেত্রে লক্ষ্য রাখতে হবে, যেমন  ১. পোনা হাড়িতে বা পলিথিন ব্যাগে আনা হলে, পলিথিন ব্যাগটির মুখ খোলার আগে পুকুরের জলে ২০-৩০ মিনিট ভিজিয়ে রাখতে হবে; ২. তারপর ব্যাগের মুখ খুলে অল্প করে ব্যাগের জল পুকুরে এবং পুকুরের জল ব্যাগে ভরতে হবে। ৩. ব্যাগের জল ও পুকুরের জলএর তাপমাত্রা যখন সমান হবে তখন পাত্র বা ব্যাগের মুখ আধা জলে ডুবিয়ে কাত করে সব পোনা পুকুরে ছেড়ে দিতে হবে। সকাল ও বিকালই পোনা ছাড়ার ভালো সময়।  ৯ম ধাপ : দিনে দুইবার অর্থাৎ সকাল ১০টায় এবং বিকাল ৩টায় খৈল, কুঁড়া, ভুসি ইত্যাদি সম্পূরক খাদ্য সরবরাহ করতে হবে।   সতর্কতা : ১. রোগ প্রতিরোধী মাছের চাষ করতে হবে। ২. সঠিক সংখ্যায় পোনা মজুদ করতে হবে। ৩. পোনা ছাড়ার আগে পোনা রোগে আক্রান্ত কিনা তা নিশ্চিত করতে হবে। ৪. পুকুরে পর্যাপ্ত সূর্যের আলোর ব্যবস্থা করতে হবে এবং পুকুরে যাতে আগাছা না থাকে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। ৫. প্রতি ৩-৪ বছর পরপর পুকুর শুকিয়ে ফেলতে হবে।   বাণিজ্যিকভাবে চাষযোগ্য মাছ দেশি কার্প- রুই, কাতলা, মৃগেল, কালি বাউশ; বিদেশি কার্প- গ্রাস কার্প, সিল্ভার কার্প, কার্পিও, মিরর কার্প, বিগহেড কার্প ছাড়াও পাঙ্গাশ, তেলাপিয়া, সরপুঁটি/রাজপুঁটি, কৈ, চিংড়ি এসব। বিভিন্ন স্তরের মাছ একসাথে চাষের আনুপাতিক হার উপরের স্তর ৪০%; মধ্য স্তর ২৫%; নিম্ন স্তর ২৫%; সর্বস্তর ১০% মোট ১০০%। সাধারণত শতাংশ প্রতি ১৫০টি পোনা ছাড়া যায়। এ হিসাবে ৩০ শতাংশের একটি পুকুরে মোট ৪৫০০টি পোনা ছাড়া যাবে। এবং উপরের স্তরের মাছ থাকবে {(৪০x৪৫০০)/১০০}=১৮০০টি পোনা   পুকুরে মাছ চাষ ১. সনাতন পদ্ধতির মাছ চাষ : এ পদ্ধতিতে পুকুরের কোনো ব্যবস্থাপনা ছাড়াই মাটি ও পানির উর্বরতায় পানিতে যে প্রাকৃতিক খাদ্য তৈরি হয় মাছ তাই খেয়ে জীবন ধারণ করে। এক্ষেত্রে আলাদা কোনো পরিচর্যা নিতে হয় না।  ২. আধা-নিবিড় পদ্ধতির মাছ চাষ : এ পদ্ধতিতে নিয়মমতো পুকুর প্রস্তুত করে আংশিক সার ও খাদ্য সরবরাহ করে মাছের খাদ্য উৎপন্ন করতে হয়। পুকুরের বিভিন্ন স্তরে উৎপাদিত খাদ্যের সঠিক ব্যবহারের দিকে লক্ষ্য রেখে মাছের পোনা ছাড়তে হয়।  ৩. নিবিড় পদ্ধতির মাছ চাষ : অল্প জায়গায়, অল্প সময়ে বেশি উৎপাদনের জন্য সার ব্যবহার করে পুকুরে প্রাকৃতিক খাদ্যের উৎপাদন বাড়াতে হয়।  ৪. কার্প জাতীয় মাছের মিশ্র চাষ : পুকুরের বিভিন্ন স্তরে উৎপন্ন খাবার সম্পূর্ণ ব্যবহার করার জন্য রুই, কাতলা, মৃগেল, কালিবাউস, বিগহেড, সিলভারকার্প, কমনকার্পসহ প্রজাতির মাছ একত্রে চাষ করা যায়।   মাছের প্রক্রিয়াজাতকরণ ১. মাছ প্রক্রিয়াজাতের সময় হাত দিয়ে বেশি ঘাঁটাঘাঁটি করা যাবে না; মাছ ধরার পর মাছের আকৃতি অনুযায়ী আলাদা করে ফেলতে হবে; বাক্সে বা পাত্রে বরফ দিয়ে স্তরে স্তরে মাছ সাজাতে হবে।   পরিচর্যা ১. বর্ষার শেষে পুকুরের জলে লাল বা সবুজ সর পরলে তা তুলে ফেলতে হবে; জলের সবুজভাব কমে গেলে অবশ্যই পরিমাণমতো সার দিতে হবে; মাঝে মাঝে জাল টেনে মাছের অবস্থা দেখতে হবে; পুকুরে জাল টেনে মাছের ব্যায়াম করাতে হবে।

  • জানলে অবাক হবেন, কম খরচায় ঘোরা যাই এই পাঁচটি দেশ

    newsbazar24:  ইন্দোনেশিয়া ইন্দোনেশিয়া বললেই চোখের সামনে বালি দ্বীপের জাঁকজমক নাইট ক্লাবের কথা মনে আসে। সমুদ্রসৈকতে সময় কাটানোর জন্য অস্ট্রেলিয়া বা ইউরোপের দেশগুলো থেকে আসা পর্যটকদের পছন্দের স্থান হচ্ছে বালি। তবে এর বাইরেও ঘোরার অনেক জায়গা রয়েছে ইন্দোনেশিয়ায়। যেমন উবুদ। দ্বীপরাষ্ট্র ইন্দোনেশিয়ার এটিও একটি দ্বীপ। উবুদে থাকার জন্য মন্দিরের মতো ছোট ঘর ভাড়া পাওয়া যায় ১০ ডলারে। ইন্দোনেশিয়ার খাবারও বেশ সুস্বাদু। এক ডলারে খুব আরাম করে খাওয়া যাবে উবুদে। এ ছাড়া গিলি দ্বীপের লোম্বোকে রাত্রিকালীন বাজারে এক প্লেট সানি গোরেং (সবজি-ভাত, ডিম এবং মুরগি দিয়ে তৈরি খাবার) খেতে পারবেন মাত্র দুই ডলারে। আর যদি ইন্দোনেশিয়ান খাবার ভালো না লাগে তাহলে পশ্চিমা খাবারও পেয়ে যাবেন ছয় থেকে ১০ ডলারের মধ্যে। থাইল্যান্ড থাইল্যান্ড শুনেই আঁতকে উঠছেন! যতই জাঁকজমক বা দামি সৈকত থাকুক, সস্তায় থাইল্যান্ড ঘোরার ব্যবস্থাও রয়েছে। তবে এর জন্য আপনাকে যেতে হবে থাইল্যান্ডের উত্তরাঞ্চলে। রাজধানী ব্যাংকক থেকে রাতের ট্রেন ধরে চলে যান উত্তরের চিয়া মাইতে। সেখানে পা রাখলেই বুঝবেন এখনো কম পয়সায় থাইল্যান্ডে আরাম করে থাকা এবং ঘোরা যায়। উত্তরের বেশকিছু শহরে তিন ডলারে রাতে থাকার জন্য হোটেলে বিছানা পাবেন আর রুম পেতে হলে গুনতে হবে ছয় ডলার। তবে সস্তা দেখে ভাববেন না যে কোনোমতে থাকার ব্যবস্থা, বেশ গোছানো এবং পরিপাটি এসব হোটেল। বিলাসিতা নেই কিন্তু প্রয়োজনীয় সবকিছুই পাবেন। থাইল্যান্ডের মুদ্রায় ৩০ বাথে (এক ডলার) রেস্টুরেন্টে বসে থাই খাবার খেতে পারবেন পেট পুরে। নিকারাগুয়া একসময় রাজনৈতিক অস্থিরতা এবং গৃহযুদ্ধের কারণে নিকারাগুয়া ছিল অশান্ত এক দেশ। কিন্তু ধীরে ধীরে পরিস্থিতির উন্নতি ঘটেছে। এখন পর্যটকদের জন্য অন্যতম আকর্ষণীয় এক জায়গা নিকারাগুয়া। মধ্য আমেরিকার অন্যতম সুন্দর দেশ নিকারাগুয়া যেটি খুব অল্প পয়সায় ঘুরে দেখা যায়। তবে নিকারাগুয়ার পাশের দেশ কোস্টারিকায় ঘুরতে গেলেই বাড়তি পয়সা গুনতে হবে। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার মতোই সস্তায় থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে কোস্টারিকায়। স্যান হুয়ান দেল সুর শহরে পাঁচ ডলারে হোটেলে থাকার জন্য বিছানা পেয়ে যাবেন আর ১০ ডলারে বাথসহ রুম পেয়ে যাবেন। তবে খেয়াল রাখবেন যদি পশ্চিমা কোনো প্রতিষ্ঠানের মালিকানাধীন হোটেলে ওঠেন, তাহলে এর চেয়ে দ্বিগুণ দাম শোধ করতে হবে। চেষ্টা করবেন নিকারাগুয়ার স্থানীয়দের দ্বারা পরিচালিত হোটেলগুলোতে ওঠার। নিকারাগুয়ার স্থানীয় খাবারের মধ্যে প্রচলিত হচ্ছে মটরশুটি ও চাল। এই খাবারটির মধ্যে তেমন কোনো বৈচিত্র্য নেই। সকালের নাশতার জন্য এক ডলার আর রাতের খাবারে চার থেকে পাঁচ ডলার খরচ হয়ে যাবে। তবে সি ফুডের বেশকিছু আইটেম রয়েছে। বলিভিয়া লাতিন আমেরিকার দেশ বলিভিয়া। সময়ের সাথে তাল রেখে ধীরে ধীরে উন্নতি করছে দেশটি। কিন্তু এখনো বেশ সস্তায় সেখানে ঘোরার ব্যবস্থা রয়েছে। পাঁচ-ছয় ডলারের মধ্যে এখানে থাকার জন্য বিছানা পাওয়া যাবে। ১০ ডলারে থাকার রুম পাওয়া যাবে। বলিভিয়ার পাশে পেরুও ঘোরার জন্য ভালো জায়গা। তবে এখনো লাতিন আমেরিকার অন্য দেশগুলোর তুলনায় বলিভিয়া অনেক সস্তা। কম্বোডিয়া দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া সস্তায় ঘোরাঘুরির জন্য ভালো জায়গা। কম্বোডিয়ায় ঘুরতে গেলে সেটা ভালোমতোই বুঝতে পারবেন। এখনো কম্বোডিয়ার রাস্তা পুরোনো সস্তা বাস এবং মিনিভ্যান চলে অভ্যন্তরীণ রুটগুলোতে। দেশটির রাজধানী নম পেন অথবা সিয়াম রিয়েপ শহরে তিন থেকে পাঁচ ডলারের মধ্যে ভালো হোটেলে থাকার জন্য বিছানার ব্যবস্থা হয়ে যাবে। তবে রুম পেতে চাইলে ১০ ডলার খরচ করতে হবে। থাইল্যান্ড বা ভিয়েতনামের মতো তেমন সুস্বাদু নয় কম্বোডিয়ার খাবার। রাজধানী ফুনম পেনের স্ট্রিট ফুড খেয়ে আরাম পাবেন, বিশেষ করে রাত্রিকালীন বাজারগুলোতে। থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা তো হলো, ঘোরার জন্য যেতে পারেন আংকর ওয়াতে, সেখানে প্রচুর মন্দির পাবেন দেখার মতো। বেশ আগেকার তৈরি এসব মন্দির। আর যদি সমুদ্রের কাছাকাছি থাকতে চান, তাহলে সিহানুক্সভিল বা কো রং দ্বীপে যেতে পারেন।

  • আপনার আজকের দিন কেমন কাটবে ? জানুন আজকের রাশিফল (শুক্রবার ২৪ মে ২০১৯)

    newsbazar24:  মেষ  মাতৃকুলের সম্পত্তি পাওয়ার একটা ভাল সুযোগ আসতে পারে। প্রিয় জনের চিকিৎসার কাজে অর্থ ব্যয়। আজ পরিবারে আর্থিক অনটন দেখা দিতে পারে। উচ্চ বিদ্যার্থীদের সামনে বিশেষ সুযোগ আসতে চলেছে। আজ অকারণে মনে ভয় সৃষ্টি হতে পারে। রাস্তায় চলার সময় বাড়তি সতর্কতা প্রয়োজন। মনোরম জায়গায় বেড়াতে যাওয়ার পরিকল্পনা হতে পারে। স্ত্রীর সঙ্গে মনোমালিন্য কেটে যাবে। আজ সারা দিন কোনও খরচ বার বার হতে পারে। বাড়িতে সকলে মিলে সুখী সময় কাটাবেন। বৃষ  আজ অপরকে সুখি করতে গিয়ে নিজেকে একটু কষ্ট করতে হবে। অভিজ্ঞ ব্যক্তির পরামর্শে আইনি সুরক্ষা পেতে পারেন। যে কোনও প্রতিযোগিতামূলক কাজে জেতার আশা রাখতে পারেন। কর্মস্থানে কিছু ভুল হওয়ার জন্য মন খারাপ। স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কে রুক্ষতা বাড়বে। বিশেষ কোনও আলোচনা থাকলে তাড়াতাড়ি সেরে ফেলুন। শারীরিক দুর্বলতায় ভোগান্তি। বিদ্যার্থীদের সামনে ভাল কিছু করে দেখানোর সুযোগ আসতে চলেছে। মিথুন আজ অতিরিক্ত লোভ আপনার জীবনে বিপদ বাড়াতে পারে। বুদ্ধি স্থির রেখে বিশেষ কোনও কাজের দিকে পা বাড়ানোই শ্রেয়। চাকরিজীবীদের পদোন্নতির যোগ। স্বাস্থ্য ভাল থাকবে। নতুন কোনও কাজের সুযোগ বা বাড়তি উপার্জন হতে পারে। আজ কিছু দান করে মানসিক শান্তি। তৃতীয় কারও জন্য সংসারে অশান্তি হতে পারে। শিক্ষক-শিক্ষিকাদের জন্য সময়টা শুভ। উঁচু স্থান থেকে পড়ে গিয়ে কেটে যাওয়ার আশঙ্কা। কর্কট  আজ কারও বিরুদ্ধে কোনও কথা বলতে যাবেন না। সহকর্মীদের মিষ্টি কথায় ভুলবেন না। পুরনো দিনের কোনও ঝামেলা মিটে যেতে পারে। আজ সারা দিন কাজে একটু আলস্য থাকবে। দীর্ঘমেয়াদি কোনও কাজ তাড়াতাড়ি সেরে ফেলুন। দর্শন শাস্ত্রে স্বীকৃতি বা উন্নতির যোগ দেখা যাচ্ছে। সেবামূলক কাজে মানসিক শান্তি। আজ আপনি কারও অপবাদের শিকার হতে পারেন। সিংহ  আজ ব্যবসায় শ্রীবৃদ্ধির যোগ আছে। কাউকে উপকারের বিনিময়ে নিজেকে অপমানিত হতে হবে। নতুন বাড়ি তৈরির শুভ সময় আসছে। দাম্পত্য সুখ বজায় থাকবে। আজ সন্তানের ভাগ্যের ওপর নির্ভর করে কিছু অর্থ উপার্জন হতে পারে। বাড়িতে বয়স্ক মানুষদের জন্য বিবাদ হতে পারে। দামি কিছু হারিয়ে যেতে পারে। স্ত্রীর সঙ্গে মনোমালিন্য হওয়ার যোগ। প্রতিবাদী মানসিকতা মন থেকে ঝেরে ফেলুন, না হলে বিপদ। কন্যা  আজ সঞ্চয় ও ব্যয় দুটোই সমান থাকবে। বিশেষ কোনও ব্যক্তির দ্বারা সংসারে উন্নতির যোগ দেখা যাচ্ছে। সন্তানদের পরীক্ষার ফল ভাল হবে। শরীরে একটু দুর্বলতা আসতে পারে। আজ সামাজিক কোনও কারণে নিজের বীরত্ব দেখানোর সুযোগ পাবেন। দূরের কোনও আত্মীয়ের অসুস্থতার খবর পেতে পারেন। কর্মস্থানে উদাসিন ভাব আপনার ক্ষতি করবে। ব্যথা বেদনা বাড়বে। দীর্ঘ মেয়াদি কোনও রোগের তাড়াতাড়ি চিকিৎসা করুন। তুলা কর্মক্ষেত্রে দায়িত্ব পালন নিয়ে ঝামেলা বাধতে পারে। শরীরে কোনও সমস্যায় বহু ব্যয় হতে পারে। অনেক দিনের পুরনো ভ্রমণের পরিকল্পনায় বাধা আসতে পারে। প্রেমের জট ছেড়ে যাবে। ব্যয়ের দিকে আজ একটু বেশি নজর দিতে হবে। শরীরে নানা রূপ রোগের জন্য কষ্ট বৃদ্ধি। স্ত্রীর সঙ্গে মতবিরোধ কেটে যাবে। সন্তানের সুবুদ্ধি ঘটতে পারে। ভাই-বোনদের সঙ্গে হঠাৎ ঝামেলা সৃষ্টি হতে পারে। বৃশ্চিক  আজ কর্মক্ষেত্রে বিরোধী মনোভাব ত্যাগ করাই ভাল। মামলায় জড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা আছে। প্রেমে নতুন কোনও অশান্তি আসতে পারে। ব্যবসায় জটিলতা কাটিয়ে ওঠার ভাল সময় এসেছে। বাড়িতে অতিথি আগমনের যোগ দেখা যাচ্ছে। গঠনমূলক কোনও কাজের চিন্তা ভাবনা হতে পারে। ঋণ পরিশোধ করার জন্য সঞ্চয়ে ব্যাঘাত। বাড়িতে পোষ্য কেনার জন্য আলোচনা হতে পারে। ধনু  আজ সারা দিন ব্যবসা ভাল চলবে। কারও কাজের দায়িত্ব আজ নেবেন না। সম্পত্তি কেনাবেচার শুভ সময়। যানবাহন চড়ার সময় অতিরিক্ত সতর্ক থাকুন। আজ অর্থ উপার্জনের ভাগ্য ভাল। সারা দিন সাংসারিক শান্তি বজায় থাকলেও সন্তান নিয়ে একটু অশান্তি থাকবে। অযথা কোনও ঝামেলায় জড়িয়ে পড়তে পারেন। কর্মচারীদেরদের নিয়ে চিন্তা থাকবে। নতুন কোনও ব্যবসা করার কথা ভাবতে পারেন। মকর  আজ ধর্ম আলোচনায় আপনার সুনাম বাড়বে। কর্মজগতে জনপ্রিয়তা পেতে পারেন। শরীরের কোনও অংশে খুব ব্যথা হওয়ার জন্য কাজের ক্ষতি। কিছু কেনার জন্য খরচ। আজ সারা দিন প্রচুর মানসিক চাপ থাকবে। আর্থিক টানাপড়েনের জন্য সংসারে অশান্তি হতে পারে। মা-বাবার সঙ্গে সুসম্পর্ক থাকবে। প্রশাসনিক কাজের সঙ্গে যুক্ত হতে পারেন। জলপথে বিপদের আশঙ্কা। কুম্ভ আজ নতুন কোনও কাজের সন্ধান আসতে পারে। অল্প সঞ্চয় নিয়ে ব্যবসায় চিন্তা। প্রতিবাদী মনোভাবের জন্য সমাজে সম্মান বাড়তে পারে। সন্তানদের সঙ্গে সম্পর্ক ভাল থাকবে।আজ কাজের জন্য আপনাকে বাইরে যেতে হতে পারে। মাতৃস্থানীয় কারও সঙ্গে মতবিরোধ হতে পারে। সঙ্গীতচর্চায় নতুন রাস্তা খুলতে পারে। পরিশ্রমের ফল ভাল হবে। কিন্তু অতিরিক্ত পরিশ্রমের ফলে শারীরিক কষ্ট বাড়তে পারে। মীন  প্রতিবেশীর দ্বারা ব্যবসায় কোনও ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা। কারও প্ররোচনায় পা দিলে বিপদ। পরিবারের অশান্তি মিটে যাওয়ার সঙ্কেত। অতিরিক্ত কথায় ঝামেলার সৃষ্টি হতে পারে। প্রেমের দিকে খুব সতর্ক থাকতে হবে, প্রতারিত হওয়ার যোগ আছে। আপনার মনের কথা বলার জন্য সঠিক মানুষ আজ পাবেন না। গুরুজনদের পরামর্শ মেনে চলুন। বাড়িতে চুরি হওয়ার সঙ্কেত। বিজ্ঞান চর্চায় অগ্রগতির যোগ দেখা যাচ্ছে।